অর্থপাচার মামলার আসামি খন্দকার মোহতেশাম হোসন বাবর গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৮:৩৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ৮, ২০২২

অর্থ পাচার মামলার আসামি খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবরকে গ্রেপ্তার করেছেন পুলিশ। রাজধানীর বসুন্ধরা এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। খন্দকার মোহতেশাম সাবেক স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ভাই। আজ মঙ্গলবার ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান এ তথ্য জানিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। খন্দকার মোহতেশাম হোসেন জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সহসভাপতি ছিলেন। এর আগে তিনি ফরিদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম এ জলিল বলেন, ২০০৫ সালে দুর্নীতি দমন কমিশনের মামলায়ও খন্দকার মোহতেশাম হোসেনের বিরুদ্ধে আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন। পাশাপাশি ঢাকার কাফরুল থানার অর্থ পাচার মামলায়ও তাঁর বিরুদ্ধে আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বর্তমানে কোতোয়ালি থানা হেফাজতে রয়েছেন বলে জানান এই কর্মকর্তা।

বরকত ও রুবেলের বিরুদ্ধে সিআইডির পরিদর্শক এস এম মিরাজ আল মাহমুদ বাদী হয়ে ২০২০ সালের ২৬ জুন ঢাকার কাফরুল থানায় অর্থ পাচারের অভিযোগে মামলা করেন। মামলায় ওই দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে দুই হাজার কোটি টাকার সম্পদ অবৈধ উপায়ে অর্জন এবং পাচারের অভিযোগ আনা হয়। ২০১২ সালের মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন সংশোধনী-২০১৫-এর ৪ (২) ধারায় এ মামলা করা হয়। ওই মামলা তদন্ত করে গত বছরের ৩ মার্চ আদালতে বরকত, রুবেলসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়েছে।
ওই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে আছেন আসামি সাজ্জাদ হোসেন বরকত, ইমতিয়াজ হাসান রুবেল, নাজমুল ইসলাম খন্দকার লেভী ,এ এইচ এম ফুয়াদ ও আশিকুর ফারহান।