আওয়ামী লীগের নেতা টিপুকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করেন তাঁর স্ত্রী

প্রকাশিত: ৩:২৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০২২

রাজধানীর শাহজাহানপুরে ইসলামিয়া হাসপাতালের সামনে জাহিদুল ইসলাম টিপুকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহত টিপুর স্ত্রী ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১১, ১২, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফারহানা ইসলাম ডলি বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

শুক্রবার (২৫ মার্চ) সকালে শাজাহানপুর থানায় অজ্ঞতাদের আসামি করে মামলা করেছেন। মামলা নং ১৮।
শাহজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনির হোসেন মোল্ল্যা বলেন, নিহত জাহিদুল ইসলাম টিপুর স্ত্রী সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফারহানা ইসলাম ডলি শাজাহানপুর থানায় মামলা করেছেন। অভিযোগে তিনি কারো নাম উল্লেখ করেননি।

মামলার এজাহারে টিপুর স্ত্রী অভিযোগ করেন, আমার স্বামী বৃহত্তর মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের ১০ বছর সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন দলীয়ভাবে কোন্দল ছিল। গত ৪-৫ দিন আগে আমার স্বামীকে অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতিকারীরা মোবাইল ফোনে হত্যার হুমকি দেয়।

বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) রাত সোয়া ১০টার দিকে শাহজাহানপুর থানাধীন ২০২ উত্তর শাহজাহানপুর মানামা ভবনস্থ বাটার দোকানের সামনে পৌঁছামাত্র অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা হামলা করেন। তারা আমার স্বামী জাহিদুল ইসলাম টিপুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে গুলি করেন। এতে নিহত হন- জাহিদুল ইসলাম টিপু (৫৪)

দুষ্কৃতিকারীরা আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি করার সময় রিকশা আরোহী সামিয়া আফরিন প্রীতি (২৪) নিহত হন।

ঘটনার সময় টিপু গাড়িতে ছিলেন। গুলিতে তার গাড়িচালক মনির হোসেন মুন্না (২৬) আহত হয়েছেন।

রাত সোয়া ১১টার দিকে তাদের তিনজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত মুন্না চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।