আদমদীঘিতে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত: ৭:৫৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০২১

আহসান হাবিব শিমুল(আদমদীঘি প্রতিনিধি)

মঙ্গলবার রাতে অজ্ঞাত দুবৃর্ত্তরা রুবেল হোসেন(৩২) নামের এক ব্যাবসায়ীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও চোখ উপরে ফেলে হত্যা করেছে। রুবেল বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার শালগ্রাম গ্রামের হাজী সামছুল হকের ছেলে। সে পাশের জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার তিলকপুর বাজারে ইন্টারনেট, পোল্ট্রি ফিড এবং বিভিন্ন যন্ত্রাংশের ব্যবসা করছিল।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেলে ব্যাবসায়ী রুবেল হোসেন ব্যাবসার বকেয়া টাকা আদায়ের জন্য আদমদীঘিতে আসেন। আদায়ের তাগাদা শেষে রাত ১০টার দিকে তিলকপুরে নিজ বাসায় ফিরছিলেন। সে আদমদীঘি উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নের কোমারভোগ কমিউনিটি ক্লিনিক সংলগ্ন স্থানে পৌঁছলে, অজ্ঞাত পরিচয়ের দুবৃর্ত্তরা তার মোটরসাইকেলের গতি রোধ করে। এরপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার শরীরের বিভিন্ন অংশে কুপিয়ে জখম করে এবং চোখ উপরে ফেলে হত্যা করে সড়কের পাশের বোরো ক্ষেতে ফেলে যায়। দুবৃর্ত্তরা ব্যাবসায়ী রুবেলের ব্যবহৃত পালসার ব্যান্ডের মোটরসাইকেল লুট করে নিয়ে যায়।

বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে রুবেলের ক্ষত বিক্ষত লাশ দেখতে পেয়ে গ্রামের লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় থানার অফিসার ইনচার্জ জালাল উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ রিপোর্ট পাঠানোর সময় পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি। তবে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল। উল্লেখ্য যে, গত ৬ মাসে এ হত্যাকান্ড সহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মোট ৫ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটল।