ইউক্রেনে মিসাইল তথা ক্ষেপণাস্ত্র পাঠিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১১:২৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ৭, ২০২২

অস্ট্রেলিয়ার সরকারের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী যুদ্ধকবলিত পূর্ব ইউরোপের দেশ ইউক্রেনে মিসাইল তথা ক্ষেপণাস্ত্র পাঠিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন আজ সোমবার ( ৭ মার্চ) এ তথ্য জানিয়েছেন। কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি।
গত সপ্তাহে ইউক্রেনকে ৫ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের ক্ষেপণাস্ত্র এবং প্রাণঘাতী অস্ত্রের পাশাপাশি সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহের ঘোষণা দেন স্কট মরিসন। তিনি বলেন, আমাদের ক্ষেপণাস্ত্র এখন ইউক্রেনে।
একই দিন চীন-রাশিয়ার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ককে কৌশলগত নয় বরং সুবিধাবাদী হিসেবে বর্ণনা করে সমালোচনা করেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী। এটি একটি স্বৈরাচার জোট হিসেবে আখ্যায়িত করেন।
ইউক্রেনে রুশ অভিযানের বিরুদ্ধে নিন্দা জানাতে বেইজিংয়ের ব্যর্থতা এবং অন্যান্য দেশের নিষেধাজ্ঞা আরোপের মধ্যেও রাশিয়ায় গমের ব্যবসা সম্প্রসারণের সমালোচনা করেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী।
রাশিয়ার অভিযানের কারণে দেশটির ওপর এখন পর্যন্ত বহু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেম পশ্চিমাদের পাশাপাশি এশিয়ার একাধিক দেশ।
গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়ান সেনাবাহিনী। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা দেশগুলো ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের বিরোধিতা করে চলছে । এসব দেশ নানাভাবে ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়েছে এবং আরো বিভিন্ন সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। একই সঙ্গে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হচ্ছে মস্কোর ওপর।অন্যদিকে, রাশিয়ার চলমান সামরিক অভিযানের মুখে দিশেহারা হয়ে গেছে ইউক্রেনের সাধারণ মানুষ। ইতোমধ্যে ১৫ লাখের বেশি ইউক্রেনিয়ান আশেপাশে দেশে আশ্রয় নিয়েছেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর।