ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে শান্তি বৈঠক মধ্যস্থতাকারী নিহত

প্রকাশিত: ১০:৪৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ৬, ২০২২

ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে শান্তি বৈঠক মধ্যস্থতাকারী এক ব্যক্তিকে কিয়েভে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। ইউক্রেনিয়ান সিকিউরিটি সার্ভিসের এজেন্টরা শনিবার রাজধানী কিয়েভে মাথায় গুলি করে তাকে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন।

খবর ছড়িয়েছে, রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে ডেনিস কিরিভকে খুন করেছে ইউক্রেন।
শনিবার (০৫ মার্চ) ইউক্রেন প্রতিনিধি দলের সদস্য কিরিভের মৃত্যুর তথ্য প্রথম প্রকাশ করেন দেশটির সংসদ সদস্য আলেকজান্ডার দুবিনস্কি।

সামাজিক মাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে তিনি দাবি করেন, গ্রেফতারের চেষ্টার সময় ইউক্রেনীয় নিরাপত্তা সংস্থা এসবিইউয়ের এজেন্টরা ডেনিস কিরিভকে গুলি করে হত্যা করেছে। তবে শনিবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত ডেনিসের মৃত্যুর ব্যাপারে ইউক্রেনের সরকারি কর্মকর্তাদের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

পরে ইউক্রেনের শীর্ষ দুই গণমাধ্যম ইউক্রেনিয়া.ইউএ এবং অবজরেভাটেল অজ্ঞাত সূত্রের বরাতে কিরিভের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে। ডেনিসের মৃতদেহের আংশিক অস্পষ্ট একটি ছবিও প্রকাশ করে তারা। সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ফুটপাতে মুখ থুবড়ে পড়ে আছেন এক ব্যক্তি। তার মুখ​ও মাথা রক্তাক্ত।

ইউক্রেনে রাশিয়ার সেনা অভিযান চলমান অবস্থায় ইতোমধ্যে দুই দফা আলোচনায় বসেছে দুই ক্রেমলিন ও কিয়েভ। সোমবার প্রথম দফা আলোচনায় তেমন কোনো অগ্রগতি জানা না গেলেও বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফা আলোচনায় কিছু আপাত স্বস্তির খবর ছিল। আর এসব আলোচনায় ডেনিস কিরিভ উপস্থিত ছিলেন।

দ্বিতীয় পর্যায়ের শান্তি বৈঠকে রাশিয়া-ইউক্রেন, দু’দেশই কথা দিয়েছিল, যুদ্ধের মাঝে আটকে থাকা নিরীহ মানুষজনকে উদ্ধারের পথ করে দেওয়া হবে। এর পরের ২৪ ঘণ্টা এ নিয়ে কোনও উচ্চবাচ্য করেনি রাশিয়া।
রোববার একাদশতম দিনে পৌঁছেছে রুশ অভিযান। প্রাণ বাঁচাতে ইতোমধ্যে ইউক্রেন থেকে পালিয়ে পার্শ্ববর্শিতী রাষ্ট্র পোল্যান্ড ও রোমানিয়ায় আশ্রয় নিয়েছেন প্রায় ১০ লাখ ইউক্রেনীয়। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, গত ১১ দিনের সামরিক অভিযানে ইউক্রেনে সাড়ে ৩ শ’রও বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন।