ঢাকা, ২৯শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ৭ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

ইতিহাসে আমরা সবচেয়ে বেশি সুষ্ঠুভাবে মশা নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি : শেখ ফজলে নূর তাপস..


প্রকাশিত: ৮:০৩ অপরাহ্ণ, মে ২৫, ২০২১

গত বছর ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি মশা নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

সোমবার (২৫ মে) নগর ভবনে মেয়র হানিফ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত কর্পোরেশনের দ্বিতীয় পরিষদের ৭ম বোর্ড সভায় এই মন্তব্য করেন তিনি।

মেয়র বলেন, ‘গত বছর করপোরেশনের ইতিহাসে আমরা সবচেয়ে বেশি সুষ্ঠুভাবে মশক নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। শুধু জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে কিউলেক্স মশার উপদ্রব কিছুটা বেড়েছিল, কিন্তু বাকি ১০ মাস মশক পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে ছিল। আবারও ডেঙ্গুর মৌসুম আসছে। সুতরাং এ ব্যাপারে বিগত বছরের মত আপনাদের নিবিড় তদারকি ও কার্যক্রম বজায় রাখতে হবে।’

সরকারি আবাসন-স্থাপনায় মশক নিধনে সজাগ থাকতে এবং তদারকি কার্যক্রম জোরদার করতে কাউন্সিলরদের প্রতি আহ্বান জানান শেখ ফজলে নূর তাপস।

তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় সরকারের বিভিন্ন অধিদফতর বা সংস্থার যে সকল আবাসন, নির্মাণাধীন ভবন এবং সরকারের বিভিন্ন সংস্থার দফতর রয়েছে- সেসব জায়গাগুলোতে অনেক সময় মশক বিস্তারের উপযোগী পরিবেশ বিরাজমান থাকে। যেহেতু সে সকল জায়গায় আমাদের কর্মীরা নিয়মিতভাবে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারে না, তাই সেখানে যাতে মশকের বিস্তার না ঘটে সে বিষয়ে আপনারা সজাগ থাকবেন, তদারকি করবেন এবং প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।’

কর বৃদ্ধি না করেই রাজস্ব আদায় বৃদ্ধির ওপর জোর দেয়া হচ্ছে জানিয়ে তাপস বলেন, ‘নির্বাচনী ইশতেহারে কথা দিয়েছিলাম-আমরা কোনো কর বৃদ্ধি করব না। আমরা কর বৃদ্ধি করিনি। কিন্তু কর বৃদ্ধি না করেই, কর আদায়ের ক্ষেত্র বৃদ্ধি করে তা সুচারুরূপে সম্পন্ন করতে পারলেই আমরা পর্যায়ক্রমে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে পারব। আমরা সে পথেই এগিয়ে চলেছি।’

বোর্ড সভায় করপোরেশনের কাউন্সিলর ছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহাম্মদ, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. বদরুল আমিন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. শরীফ আহমেদ, প্রধান প্রকৌশলী রেজাউর রহমান, সচিব মো. আকরামুজ্জামান, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক, আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।