এবার অলিম্পিকের দর্শকদের জিম্মি করছে বিমান সংস্থাগুলো

প্রকাশিত: 1:08 PM, June 6, 2020

করোনাভাইরাসের কারণে এক বছর পিছিয়ে গেছে বিশ্বের সবচেয়ে সেরা ক্রীড়া ইভেন্ট অলিম্পিক। এবারের অলিম্পিক টোকিওতে। এটি দুই বছর আগ থেকেই জানা ছিল। তাই টোকিও অলিম্পিকের খেলা উপভোগ করতে আগেভাগেই বিমানের টিকিট ও হোটেল বুকিং করেছিলেন দর্শক-সমর্থকরা। কিন্তু টোকিও অলিম্পিক না হওয়ায় তাদের কপাল পুড়েছে। বিমানের টিকিট ও হোটেল বুকিং বাতিল করেও দর্শক-সমর্থকরা নিজেদের অর্থ ফেরত পাচ্ছে না।

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি অবশ্য আসর বাতিলের পর বলেছিল, ২০২০ সালের অলিম্পিকের নানা ইভেন্ট দেখার জন্য যারা টিকিট কেটেছিলেন, তারা ২০২১ সালেও ঐসব টিকিট দিয়ে খেলা দেখতে পাবেন। যদি কেউ না দেখতে চায়, তাদের টাকা ফেরত দেয়া হবে। কিন্তু বিমান ও হোটেলের বুকিং বাতিল করলে অর্থ ফেরত দিচ্ছে না বিমান সংস্থা ও হোটেল কর্তৃপক্ষ।

আমেরিকার ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির এক প্রফেসার জানান, ‘অলিম্পিকের জন্য বিমান বুকিং ও ২৬ দিনের জন্য ছাত্র-ছাত্রীরা থাকবেন বলে ৩০টি রুম বুকিং দিয়েছিলেন। এজন্য তাদের খরচ হয়েছে, ৮৩ হাজার ইউরো। কিন্তু আমি যদি বিমান ও হোটেল বুকিং বাতিল করি, তবে তারা আমাদের কোনো অর্থ দেবে না। এমনকি আমি যদি আগামী বছর তা ট্রান্সফার করি, কিন্তু তাতেও বিমান সংস্থা ও হোটেল কর্তৃপক্ষ রাজি নয়।’