এবার সিটিটিসি পরিদর্শকের প্রাণ কেড়ে নিল করোনা

প্রকাশিত: 3:05 PM, May 24, 2020

করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজধানীতে রাজু আহম্মেদ নামে আরো এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে পুলিশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৩ জনে।

রাজু আহম্মেদ পুলিশের পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তা ছিলেন। তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটে কর্মরত ছিলেন।

রোববার (২৪ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

পুলিশ হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত ২ মে অসুস্থবোধ করায় করোনার পরীক্ষা করান পরিদর্শক রাজু আহম্মেদ। পরদিন পরীক্ষায় করোনা পজেটিভ এলে ৪ মে তিনি রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি হন। ওই দিনই শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন থাকা পুলিশের এ কর্মকর্তা রোববার সকালে মারা যান।

রাজু আহম্মেদের গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে। তিনি স্ত্রী, এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তান রেখে গেছেন।

এ পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যুতে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম (বার) গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

মরহুমের মরদেহ পুলিশের উদ্যোগে তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে পাঠানো হয়েছে। সেখানে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পারিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হবে।

 

করোনাকালে জনগণকে সেবা ও সুরক্ষা দিতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হন তিনি। করোনা প্রতিরোধের ফ্রন্ট ফাইটার ছিলেন তিনি।

 

করোনাযুদ্ধে আত্মোৎসর্গ করা বাকি ১২ সদস্য হলেন-ডিএমপির কনস্টেবল জালাল উদ্দিন খোকা (৪৭), সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) শ্রী রঘুনাথ রায় (৪৮), কনস্টেবল জসিম উদ্দিন (৪০), এএসআই মো. আব্দুল খালেক (৩৬), কনস্টেবল মো. আশেক মাহমুদ (৪৩), উপপরিদর্শক (এসআই) সুলতানুল আরেফিন (৪৪), এসবির এসআই নাজির উদ্দীন (৫৫), এসআই মো. মজিবুর রহমান তালুকদার (৫৬) এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কনস্টেবল মো. নঈমুল হক (৩৮), চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের কনস্টেবল মোখলেসুর রহমান, ডিএমপির নায়েক মো. আল মামুনুর রশিদ ও রাজশাহী রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্সে এসআই আল মোশাররফ হোসেন।