ঐক্যের আহবান জানিয়ে বেনাপোলে সাংবাদিক বৈঠক অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৩:৩৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৯, ২০২২


সাহিদুল ইসলাম শাহিনঃ বিশেষ প্রতিনিধিঃ

যশোরের বন্দরনগীর বেনাপোলে সাংবাদিক সমাজ আয়োজিত সাংবাদিক বৈঠক হতে পেশাগত দায়িত্ব পালন ও পেশার সন্মান অক্ষুন্ন রাখতে শার্শা উপজেলায় এ পেশায় নিয়োজিত সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানানো হয়েছে।

সোমবার (৮ আগস্ট) বেনাপোল বাজারস্থ রহমান চেম্বারের সানরুফে এই সাংবাদিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
শার্শা উপজেলা সাংবাদিক সংস্থার সভাপতি আবুল বাশারেরে সভাপত্তিতে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলো বাঁগআচড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি আরিফুজ্জামান আরিফ, সাধারনসম্পাদক আবু সাইদ,সীমান্ত প্রেসক্লাব এর সভাপতি সহিদুল ইসলাম শাহীন,বেনাপোল একতা প্রেসক্লাবের সভাপতি ওহিদুল ইসলাম ওহিদসহ শার্শা উপজেলার বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

সাংবাদিক বৈঠকে রাখা বক্তব্যে একতা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মাহমুদুল হাসান বলেন, সাংবাদিকতা পেশায় নিয়োজিত সকলকে সমমর্যদায় দেখতে হবে।এ অঞ্চলে কর্মরত সিনিয়র সাংবাদিকদের নতুনদের সুযোগ করে দিতে হবে। এ পেশায় নবীনেরা কোন ভাবেই সিনিয়র সাংবাদিক দ্বারা লাঞ্চিত না হয় সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

সাংবাদিক সংস্থা শার্শা উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক কামাল উদ্দিন বলেন দূর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করাকে ক্রেন্দ্র করে সাংবাদিকদের মধ্যে দন্ধ অত্যান্ত দুঃখজনক। এটা কোন ভাবে কাম্য নই তাই আসুন আমরা সকলে ঐক্যবদ্ধ হই।

বক্তব্যে এশিয়ান টিভির জেলা প্রতিনিধি সেলিম আহমেদ বলেন সাংবাদিক সমাজে আভ্যন্তরীন কোন্দল কাম্য নয়। সাংবাদিক সংস্থার সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম মারুফ বলেন বড় মানের পত্রিকা মানেই বড় মাপের সাংবাদিক নই তাই সকলকে মূল্যায়ন করতে হবে।

উল্লেখ্য গত ৪ আগস্ট বেনাপোল কাস্টমস্ হাউসের কর্মকর্তার দূর্নীতির বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশকে কেন্দ্র করে কোন্দলে জড়ায় গ্রামের কন্ঠের বেনাপোল প্রতিনিধি তরুন সাংবাদিক জাহিদ হাসান ও ইনকিলাব পত্রিকায় কর্মরত বেনাপোলের সিনিয়র সাংবাদিক মহাসিন মিলন।বিষয়টি শেষ পর্যন্ত থানাতে গড়িয়ে পাল্টা পাল্টি সাধারন ডায়েরী অন্তভূক্ত হয়।

বিষয়টি শার্শা উপজেলা সাংবাদিক সমাজের নজরে আসলে আভ্যন্তরীন কোন্দল সমাধানে সচেষ্ট হয়ে এই সাংবাদিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে আয়োজক কমিটি জানাই।