করোনা ভাইরাসের বিনাশে নরবলি!

প্রকাশিত: 3:41 PM, May 29, 2020

গোটা বিশ্বে মারণ থাবা বসিয়েছে নোভেল করোনা ভাইরাস। ভ্যাকসিন বা কোনও টিকা আবিষ্কার হয়নি। তবুও বিজ্ঞানের দিকেই তাকিয়ে গোটা পৃথিবীর মানুষ। কিন্তু এই পরিস্থিতিতেও অনেকে আবার কুসংস্কারের দিকেই ঝুঁকে। সম্প্রতি ওডিশার ঘটনা ফের সেকথাই প্রমাণ করল। যেখানে স্থানীয় এক যুবককে নরবলি দিয়ে তাঁর মুন্ডু কেটে পুজো দিল একটি মন্দিরের পূজারি৷

মৃত ওই যুবকের নাম সরোজ কুমার প্রধান। মন্দিরের মধ্যেই ওই যুবককে বলি দেওয়া হয়। তারপর মুণ্ডুটি রেখে পূজা করা হয়। পুরোহিতের বক্তব্য, স্বপ্নে সে দেখেছে বলি দিলেই ভগবান তুষ্ট হবে। করোনা মহামারিও থেমে যাবে।

জানা গিয়েছে, মৃত ওই যুবকের নাম সরোজ কুমার প্রধান।  মন্দিরের মধ্যেই ওই যুবককে বলি দেয় অভিযুক্ত পুরোহিত৷ তারপর মুন্ডুটি রেখে পুজো করে৷ পুরোহিতের বক্তব্য, স্বপ্নে সে দেখেছে বলি দিলেই ভগবান তুষ্ট হবে৷ করোনা মহামারীও থেমে যাবে৷

বুধবার মধ্যরাতে এই ঘটনাটি ঘটে কটকের নরসিংহপুর থানা এলাকায়৷ অভিযুক্ত পুরোহিতের নাম সনসারি ওঝা৷ বয়স ৭২৷ একটি নামী মন্দিরে পুরোহিত সে৷ নরবলি দিয়ে পুজো শেষ করেই নিজেই পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে৷

পরে জেরায় অভিযুক্ত পুরোহিত পুলিশকে জানিয়েছে, নরবলির আগে তার সঙ্গে বছর পঁচিশের সরোজের সঙ্গে বচসা হয়৷  এরপরই একটি কুড়ুল দিয়ে যুবকের ধর থেকে মাথা আলাদা করে দিয়েছিল ওই পুরোহিত৷ ইতিমধ্যে সেই কুড়ুলটিও উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ সরোজের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে৷

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ওই যুবকের সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরেই বচসা ছিল পুরোহিতের৷ এই প্রসঙ্গে এক পুলিশ আধিকারিক জানান, ‘ওই পুরোহিত‌ বলি দেওয়ার সময় মদ্যপ অবস্থায় ছিল। সকালে হুঁশ ফেরার পরই আত্মসমর্পণ করে৷’‌