চরম অর্থনৈতিক সংকট, পরমাণু অস্ত্র বন্ধক রাখছে পাকিস্তান!

প্রকাশিত: 12:00 PM, June 5, 2020

বেকারত্ব, অন্ন জোগানের সমস্যা ও চরম অর্থ সংকট। দেশের বড় সংখ্যক গরিব মানুষ, দিনমজুর এই লকডাউনে জীবন অতিবাহিত করতে পারছেন না। জীবিকা হারিয়ে তারা চরম অর্থকষ্টে রয়েছেন। লকডাউনের জেরে একেবারেই ভেঙে পড়েছে আগে থেকে ধুঁকতে থাকা পাকিস্তানের অর্থনীতি। এই পরিস্থিতিতে দেশ বাঁচাতে ‘ভিক্ষার’ ঝুলি হাতে নামছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেট অধিনায়ক জাভেদ মিয়াঁদাদ।
মিয়াঁদাদ জানিয়েছেন, তার দেশের উপর আবার ঋণের বোঝা চাপতে পারে। আর এবার আইএমএফ-এর মতো সংগঠনের থেকে ঋণ চাইতে গেলে পাকিস্তানের পরমাণু বোমা বন্ধক রাখতে হবে। নাহলে আর কোনও আন্তর্জাতিক সংস্থা ঋণ দেবে না। তাই তিনি পাকিস্তানের পরমাণু অস্ত্র বাঁচাতে মাঠে নেমে পড়েছেন। একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলেছেন জাভেদ। তাতে অর্থ দানের জন্য দেশবাসীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক একটি ভিডিও প্রকাশ করে বলেছেন, ‘আমি ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তানে একটি অ্যাকাউন্ট খুলেছি। আপনাদের কাছে ভিক্ষা চাইছি। দয়া করে ওই অ্যাকাউন্টে অর্থ সাহায্য করুন। পাকিস্তানের অনেক মানুষ নিজের দেশকেই নির্বিচারে লুটেছে। এবার আমাকে সাহায্য দিয়ে তারা নিজেদের পাপের প্রায়শ্চিত্ত করুক। প্রবাসী পাকিস্তানিদের কাছেও আমার অনুরোধ রইল। আপনারাও দেশের প্রতি নিজেদের কর্তব্য পালন করুন। তা না হলে আমরা দেশের পরমাণু অস্ত্র বাঁচাতে পারব না। আগেই আমাদের উপর অনেক ঋণের বোঝা রয়েছে। এবার নতুন করে ঋণ চাইতে গেলে আইএমএফ আমাদের পরমাণু অস্ত্র জমা রাখবে। মিয়াঁদাদের আশঙ্কা পরমাণু অস্ত্র বন্ধক রাখতে হলে পাকিস্তানের উপর বড় বিপদ নেমে আসতে পারে।