তালায় জলাবদ্ধতা নিরসনে অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ

Jahid Jahid

Hasan

প্রকাশিত: ৯:০৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১, ২০২১


বি এম বাবলুর রহমান :
– তালা -সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :
তালায় জলাবদ্ধতা নিরসনে উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের খালে থাকা সব অবৈধ নেট-পাটা (ঘন জাল) অপসারণ কার্যক্রম শুরু করেছেন তালা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)এস এম তরিকুল সুলতান ।

রবিবার (১ আগষ্ট) দুপুর থেকে তালা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের বাগমারাখাল ও খোবরা খালীর খাল থেকে অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ কার্যক্রম শুরু হয়।তালা উপজেলার সহকারী কমিশনার ( ভূমি) এস এম তারিকুল সুলতান এর নেতৃত্বএ উপজেলা মৎস্য সম্প্রসারণ কর্মকর্তা স্নিগ্ধা খাঁ বাবলি, ভূমি অফিস সহকারী অসীম চক্রবর্তী ও মাগুরা ইউপি চেয়ারম্যান গনেশ দেবনাথ। তালা থানার ও পাটকেলঘাটা থানার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য, গ্রাম পুলিশ , সাবেক যুবলীগ সভাপতি মোঃ নুর ইসলাম বিশ্বাস, আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ আকরাম হোসেন, মোঃ মোস্তফা মোড়ল, লতিফ মোড়ল সহ এলাকার সাধারন জনগন এ সময় ৭০ টির মতো অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ করা হয়েছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে অপসারণ কৃত বাগমারা খাল দিয়ে বালিয়াদাহ বিলের পানি নয়নামারী গেট দিয়ে,ও খোবরা খালী খালে দিয়ে পদ্ম বিল ও বালিয়াদাহ এমন কি মাগুরা জেঠুয়া,খেশরা ইউনিয়নের অংশিক বিলের পানি নিষ্কাশন হয়ে কপোতাক্ষ নদে পড়ে। কিন্তু সম্প্রতি মাগুরা ইউনিয়নের উল্লেখিত খালে অবৈধ নেট-পাটা দিয়ে অসাধু লোকেরা মাছ ধরার নামে পানির চাপ বৃদ্ধি পেয়ে বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে।

তালা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস এম তরিকুল সুলতানা বলেন জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তারিফ উল – হাসান এর নির্দেশে মোতাবেক। অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ এর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন মাগুরা ইউনিয়ন ও পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নসমূহ বিভিন্ন খালে অবৈধ নেট-পাটা দিয়ে মাছ ধরা হচ্ছে। পানির প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ফলে মাগুরা সহ পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন সমূহের বিল ও অসংখ্য মৎস্য ঘেরের পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় আসন্ন বোরো আমন মৌসুমের জন্য ধানের চারা নষ্ট হয়ে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কৃষকরা। বোরো আমনের আবাদ নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। জলাবদ্ধতা নিরসন ও কৃষকদের বোরো আবাদ নিশ্চিত করতে নদী ও খালের সকল অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ করা হচ্ছে আজ প্রাথমিক ভাবে ৭০ টির মতো অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ করা হয়েছে এবং পর্যায়ক্রমে উপজেলা সকল খাল বিলের মধ্যে থাকা অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ করা হবে।