তালায় বাড়ীর ছাদে কৃষি চাষে সফলতা দেখছেন বেলাল হোসেন

Jahid Jahid

Hasan

প্রকাশিত: ১১:১১ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০২১

বি এম বাবলুর রহমান (তালা-সাতক্ষীরা)
কৃষি নির্ভর দেশে শুধু জমিতে কেন ? বাসা বাড়ীর ছাদে রৃতিমতো সবজি চাষ করে গ্রামীণ পরিবেশে চমকপ্রদ কৃষি বাগান গড়ে তুলেছেন মোঃ বেলাল হোসেন।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার আগোলঝাড়ার গ্রামে মোঃ বেলাল হোসেনের এ বছর ৬০০ স্কয়ার ফুটের একটি বাড়ী তৈরি করেন। আর সেখানে বিভিন্ন রকমের সবজি চাষ করতে শুরু করেন। টপে লাগিয়েছে হাইব্রিড জাতের ঢেড়শ, বরবটি, তাছাড়া মাচা পদ্ধতিতে সিম,করলা,শশা, কাঁকরোল,লাউ, পেঁপে, সহ বিভিন্ন রকমের সবজি। মাথায় ঝুলছে কাঁকরোল, লাউ, বরবটি ও ঢেরশ, বেগুন, এর ফলন প্রচুর পরিমাণে দেখা গেছে।
পাশাপাশি নানা ধরনের রকমারী ফুলের চাষ করেছেন। বাড়ীর ছাদে সবজি চাষ করেছেন। ফুলের মধ্যে গোলাপ, চ্যামেলি, জবা অন্যতম।

তাছাড়া বিভিন্ন রকমের ফলের গাছ রোপন করেছেন বেলাল হোসেন ছাদে লাগিয়েছে বিদেশি ফল কাজুবাদাম,ডালিম, আঙ্গুল, পেয়ারা,আমড়া ফল ও সবজির ছাদ বাগান এখন কৃষিজমিতে পরিণত হয়েছে। সফলতা অর্জন করতে শুরু করেছেন। এই বাড়ীর মালিক। ফুলে ফলের মনোরম দৃশ্য দেখতে ভীড় জমাচ্ছে গ্রামের নারী পুরুষ। বিকেলে ছেলে মেয়েরা ফটোসেশন করতে আসছে দূর – দুরন্ত থেকে।
মোঃ বেলাল হোসেন তালা উপজেলার আগোলঝাড়ার গ্রামের মৃত আকবার আলীর পুত্র । তিনি একজন মাদ্রাসা অফিস সহায়ক। পাশাপাশি নিজের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান নাফিস আইটি সল্যুশন পরিচালনা করেন। অফিস এবং ব্যাবসা কাজে ব্যাস্থতা থাকতে হত তাকে। তার স্ত্রী মোছাঃ নিলুফা ইয়াসমিন ঘর সামলানোর পাশাপাশি নিজের ছাদ বাগানের পরিচর্যা করেন। একমাত্র পুত্র বি এম ইসমাইল হোসেন নাফিস মোটর পাইপ দিয়ে পানি দিয়ে গাছ গুলো কে সতেজ রাখতে। সকাল বিকেল দুবার পানি দিয়ে পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করেন। সবমিলিয়ে ইচ্ছে শক্তি থাকলেই যে কোন পরিবেশে সফলতা অর্জন করা সম্ভব হয় সেটার উদাহরণ মোঃ বেলাল হোসেন ।
এ বিষয়ে মোঃ বেলাল হোসেন জানান বাড়ি তৈরি করার পর পারিবারিক ভাবে পরামর্শ করে ছাদে সবজি চাষের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে কিছু হাইব্রিড জাতের ফল ও ফুলের চাষ করেছেন। ছাদের সবজি এখন নিজেদের পরিবারের খাদ্য চাহিদা মিটছে বলে তিনি জানান। তাছাড়া এই পদ্ধতিতে চাষাবাদে কোন প্রকার কেমিক্যালে প্রদান করা হয়নি। সমর্পণ ভেজাল মুক্ত সবজি এখন তার বাড়িতে উৎপাদন হয়।

এ বিষয়ে তালা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাজিরা খাতুন জানান। জমির পাশাপাশি বাড়ির ছাদে সবজি চাষ খুব লাভজনক হয়। সাধারণত শহরে এই ধরনের রকমারী ছাদবাগান দেখা যায়। গ্রামের পরিবেশের ছাদে সবজি চাষের উদ্যোগ গ্রহণে স্বাগত জানান তিনি। তাছাড়া তাদের অফিসে পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবেন বলে তিনি জানান।