তালায় মাচা পদ্ধতিতে সবজি চাষে ব্যাপক সফলতা

Jahid Jahid

Hasan

প্রকাশিত: ১২:১৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০২১

বি এম বাবলুর রহমান (সাতক্ষীরা)
মাছ- ভাতে নয় যেন মাছ শাকে বাঙালি তার বহিঃপ্রকাশ সাতক্ষীরা তালা উপজলোয় পাটকলেঘাটায় মৎস্য ঘেরের বেড়ীবাঁধে মাচা পদ্ধততিে সবজি চাষে যেন বিপ্লব সৃষ্টি হয়ছে।ঋতি মতো একই সাথে মাছ ও সবজি চাষ করে স্বাবলম্বী হচ্ছে শত শত পরিবার।

এই পদ্ধততিে লাউ, কুমড়া, করলার (উচ্ছে) কুশি,খিরাই, বেগুন, পুঁই শাক, বরবটি,প্যাচঙ্গো, ধুন্দুল, ঝিঙে চাষে বাম্পার ফলনে দেখা দিয়েছে সফলতার এক নবদিগন্ত।এতে একই জমির বহু ব্যবহারে কৃষকদের আয় যেমন কয়েক গুণ বাড়ছে,তেমনি দেশেরে সবজির চাহিদা মেটাতে ও দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি র্অজন করতে তালা উপজলোর পাটকলেঘাটা কৃষকরা রাখছে গুরুত্বর্পূণ ভূমকিা।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে খুলনা- সাতক্ষীরা মহাসড়ক সংলগ্ন তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার নগরঘাটা ইউনিয়নের মিঠাবাড়ী,নগরঘাটা,শাগদাহ বিলে দেখা গেছে হাজার হাজার বিঘা জমির মৎস্য ঘেরের চারপাশে মাচা পদ্ধতিতে লাউ, কুমড়া ও করলা সহ নানা রকম সবজি চাষ করা হয়েছে।মাচায় ঝুলছে হাজার হাজার করলা, শত শত লাউ ও কুমড়া। একই সঙ্গে ঘেরের বেড়ীবাঁধে লাগানো হয়েছে পুঁইশাক ও ঢেড়স। উল্লেখযোগ্য কিছু মৎস্য ঘেরের বেড়ীবাঁধের উপর তরমুজ চাষ হয়েছে সেখানেও আসছে সফলতা।

আশান নগর এলাকার কৃষক সাগর হোসনে জানান, তিনি তার তিন বিঘা জমির ঘেরে মাচা পদ্ধতিতে লাউ, কুমড়া ও করলা চাষ করেছেন। মাঘ মাস পর্যন্ত এভাবেই মাছের পাশাপাশি সবজি উৎপাদন চলবে।
তারপর পানি শুকয়িে গেলে ধান রোপন করা হবে। তিনি আরো জানান, তার তিন বিঘা জমির ঘেরে নেট, বাঁশ ও কট সুতা দিয়ে মাচা তৈরিতে ছয় হাজার টাকা খরচ হয়ছে।
এখানে উৎপাদতি সবজি বিক্রিতে আয় লাখ টাকা ছাড়িয়ছে। কয়েক বছর ধরে মাচা পদ্ধতিতে ফসল উৎপাদনকারী সুনিল রায় বলনে, মাচা তৈরতে খরচ প্রতিবছর হয় না। দুই-তিন বছর পরপর মাচা তৈরি করতে হয়। এতে লাভের পরিমাণ অনেক বাড়ে।
শুধু সুনলি রায়ের ঘেরে নয়, পার্শ্ববর্তী কৃষক শংকর, ভূবনেশ্বর,স্বপন, মহিতোষ, অজিত ,তবিবুর রহমান,সোহাগ হোসেন এর ঘের সহ যতদূর দূ-চোখ যায় শুধু সবুজ আর সবুজের সমারোহ প্রকৃতিকে যেন মনোরম দৃশ্য। প্রত্যেকের ঘেরের মাচায় ঝুলছে করলা, লাউ ও কুমড়া।সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার কৃষকরা ঘেরে মাচা পদ্ধতিতে চাষাবাদে কৃষিতে বিপ্লব সৃষ্টি করছে।

এ প্রসঙ্গে তালা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা হাজিরা খাতুন জানান,তালা উপজেলায় নগরঘাটা ইউনিয়ন ও পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নসমূহ ব্যাপকভাবে চাষ হচ্ছে।এই সবজি সম্পূর্ণ ভেজাল মুক্ত । মৎস্য ঘেরের বেড়ীবাঁধের উপর এমন সবজি চাষ খুব লাভজনক।