দীঘিনালায় বিদ্যুৎ বিভাগের অনিয়মের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশিত: ১:২৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২১

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় অতিরিক্ত লোডশেডিং ও রিডিং বর্হিভুত অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল আদায়ের প্রতিবাদে এবং নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল স্থানীয়রা।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে দীঘিনালা বিদ্যুৎ বিভাগের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে শ্লোগানে শ্লোগানে দীঘিনালা সরকারি কলেজ সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে এসে জড়ো হয় স্থানীয় ভুক্তভোগীরা। এ সময় দীঘিনালা-সাজেক সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়৷ পরে পুলিশ এসে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে দ্রুত এ সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেয়ার পর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়ে যায়।

এসময় উপজেলার সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সুমন জলিল অভিযোগ করে বলেন, তিন দিন যাবৎ আমাদের এলাকায় বিদ্যুৎ নেই। এ নিয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক প্রকৌশলীর সাথে বারবার যোগাযোগ করেও কোন সমাধান হয়নি।বিদ্যুৎ বিভাগ মিটার না দেখে বিল করার কারনে গ্রাহকরা প্রতিনিয়ত নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। গুণতে হচ্ছে মাত্রাতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল।

দীঘিনালা সদর থানার উপ-পরিদর্শক শেখ মিল্টন রহমান জানান, বিদ্যুৎ ভোগান্তি নিয়ে এলাকাবাসীর বিক্ষোভের সংবাদ পেয়ে আমরা দ্রুত ফোর্স প্রেরণ করি এবং বিক্ষোভকারী ও সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে দ্রুত এ সমস্যা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করি। বর্তমানে দীঘিনালা-সাজেক সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

এসময় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নের কথা স্বীকার করে দীঘিনালা বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রের আবাসিক প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম বলেন,কবাখালীতে ঝড় ও বজ্রপাতের কারনে তার ছিড়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন ছিলো। লাইন মেরামতের কাজ চলমান। আর জনবল সংকটের কারনে মিটার দেখে বিল করতে আমাদের হিমশিম খেতে হয়। তারপরও আমরা গ্রাহকদের মিটার অনুযায়ী বিল করতে যথাসাধ্য চেষ্টা করছি। তবে লাইনে ত্রুটি না হলে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা হয়না।