পরকীয়ায় মজে হত্যা করল স্বামীকে।

প্রকাশিত: 11:05 AM, December 23, 2020

 

নিজস্ব প্রতিনিধি:

নাটোরের সিংড়া থেকে স্ত্রী উম্মে সালমাকে ৩০ হাজার টাকায় খুনী ভাড়া করে স্বামী রফিকুল ইসলামকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে পিবিআই। গত রবিবার রাতে সিংড়া উপজেলার আনন্দনগর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে। এই মামলার বাদী ছিলেন উম্মে সালমা নিজেই। স্বামী রফিকুল ইসরামের বাড়ী একই এলাকায়।

 

পিবিআই কর্মকর্তা নাজমুল হাসান জানান, নাটোরে বাড়ি হলেও রফিকুল ইসলাম স্ত্রীকে নিয়ে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারি ইউনিয়নের বিএমএ গেইট এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।এসময় প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া সাকিবের সাথে উম্মে সালমার পরকিয়ার সম্পর্ক গড়ে উঠে । বিষয়টি জানাজানী হলে স্বামী রফিুলের সাথে উম্মে সালমার কলহ হয়। পরে ৩০ হাজার টাকায় এমরানকে ভাড়া করে সাকিবের সহায়তায় রফিকুলকে হত্যা করার পরিকল্পনা করে সালমা। এরপর ২০১৯ সালের ৪ ডিসেম্বর সাকিবুল ফোনে রফিকুলকে বাড়ির পাশে লাউক্ষেতে ডেকে নিয়ে জবাই করে হত্যা করে।

এ ঘটনায় উম্মে সালমা নিজেই বাদী হয়ে সীতাকুন্ডু থানায় স্বামী হত্যার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু মামলার তেমন কোন অগ্রগতি না হওয়ায় মামলাটির অধিকতর তদন্তের জন্য পিবিআইয়ের ওপর ন্যাস্ত করা হয়। চলতি বছরের অক্টোবরে পিবিআই মৃত রফিকুলের প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া সাকিবুল ইসলাম সাকিবকে (২০) গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নেয়। এরপর সাকিব ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে হত্যার বর্ণনা দেয় এবং এমরান ও উম্মে সালমার জড়িত থাকার কথা প্রকাশ করে। পরে এমরানকে গ্রেফতার করা হলে সে জানায় ৩০ হাজার টাকায় রফিকুলকে হত্যা করার চুক্তি হয়। সে অনুযায়ী রফিকুলকে হত্যা করা হয়।

 

এমরান জানায়, রফিকুলকে হত্যার সময় উম্মে সালমা পাশেই দাড়িয়ে ছিল। অপরদিকে সাকিব রফিকুল ধরে ছিল। মামলার রহস্য উদঘাটনের পরে পিবিআই মলার বাদী সালমাকে গ্রেফতার করে সীতাকুন্ডু থানায় সোপর্দ করে।