পৃথিবীর শীতলতম মহাদেশ অ্যান্টার্কটিকাকেও ছাড়লোনা করোনা

প্রকাশিত: 6:54 PM, December 23, 2020

পৃথিবীর শেষপ্রান্ত অ্যান্টার্কটিকাতেও হানা দিয়েছে করোনাভাইরাস। এতদিন পর্যন্ত সেখানে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি বলে জানা গেলেও সম্প্রতি সেখানে করোনার প্রাদুর্ভাবের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

অ্যান্টার্কটিকায় বরফে আচ্ছাদিত প্রতন্ত অঞ্চলে অবস্থিত চিলির একটি গবেষণা কেন্দ্রে করোনার উপস্থিতি ধরা পড়েছে।

চিলির সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা অ্যান্টার্কটিকা উপদ্বীপে অবস্থিত বার্নার্ডো ও’হিগিনস গবেষণা কেন্দ্রের ৩৬ জনের দেহে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের উপস্থিতি পেয়েছে।

বার্নার্ডো ও’হিগিনস গবেষণাকেন্দ্রটি হচ্ছে অ্যান্টার্কটিকা মহাদেশে থাকা চিলির চারটি স্থায়ী ঘাঁটির একটি। এই ঘাঁটিটি সেনাবাহিনী পরিচালনা করে।

খবরে বলা হয়েছে, আক্রান্তদের মধ্যে ২৬ জনই সেনাবাহিনীর সদস্য।  অন্য ১০ জন ওই গবেষণা কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনা কর্মী।  সংক্রমণের পর তাদের সবাইকে গবেষণা কেন্দ্রটি থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

বিবিসির জানিয়েছে, ওই গবেষণা কেন্দ্রে রসদ ও কর্মী নিয়ে যাওয়া একটি জাহাজ ফিরে আসার পর জাহাজটির তিনজনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে বলে চিলির নৌবাহিনী নিশ্চিত করার কয়েকদিন পরই অ্যান্টার্কটিকায় ৩৬ জনের কোভিড-১৯ ধরা পড়ল।

অ্যান্টার্কটিকায় রোগী শনাক্ত হওয়ার ফলে বিশ্বের ৭টি মহাদেশের সবগুলোতেই প্রাণঘাতী করোনার উপস্থিতি নিশ্চিত হল।