প্রধানমন্ত্রীর কারা অন্তরীন দিবস উপলক্ষ্যে বিশেষ পার্থনা

প্রকাশিত: ২:৩৩ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০২১

১৬ জুলাই মানবতার মা শেখ হাসিনার অবৈদ্ধ কারা দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কর্মসূচির অংশ হিসেবে নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সুলতানপুর রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দিরে এক বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়।

সেনা সমর্থিত ১/১১ এর তত্ত্ববাবধায়ক সরকার ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই অবৈধ ভাবে গ্রেফতার করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। শেখ হসিনাকে গ্রেফতার করে এদেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করতে চেয়েছিল স্বৈরতান্ত্রিক তত্ত্বাবধায়ক সরকার। কিন্তু সেই ষড়যন্ত্র সফল হয়নি। তিনি কারা অভ্যন্তর থেকেই দেশকে বাঁচানোর জন্য নির্বাচন চেয়েছিলেন।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর সুস্থ্যতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ পার্থনা করা হয়। পার্থনায় উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক প্রতিক সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক দিপক কুমার প্রামানিক, সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীব মহন্ত, প্রচার সম্পাদক অমিত দেব জিৎ, উপ গ্রন্থনা প্রকাশনা সম্পাদক সুজিত সরকার, উপ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সম্পদ হালদার , সদস্য তনয় কুমার সাহা, এ ছারাও উপস্থিত ছিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কার্তিক কুমার, দ্বিপ কুমার সাহা, প্রান্ত সাহা,মানিক কুমার সাহা,সুমীর কুমার দাস সহ আরো অনেকেই।
প্রার্থনায় পূজা পরিচালনা করেন রঞ্জন চক্রবর্তী।

বিশেষ পার্থনা শেষে নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিপক কুমার প্রামানিক তার বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে অবৈধ কারাবাস থেকে মুক্ত করতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ব্যপক আন্দোলন করেছিলো, যে আন্দোলনে নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগেরও বিশেষ ভূমিকা ছিলো। আমরা বঙ্গবন্ধুর ছাত্র রাজনীতির অনুসারী, আমরা অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে ভয় পাই না, অন্যায়ের কাছে মাথা নত করি না। “জনতার সংগ্রাম চলবেই, আমাদের সংগ্রাম চলবেই”।

১১ মাস কারাভোগের পর ২০০৮ সালের ১১ জুন সংসদ ভবন চত্বরে স্থাপিত বিশেষ কারাগার থেকে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তি পান।