বেগম রোকেয়া দিবসে জয়িতা পুরস্কার পেলেন ৫নারী

প্রকাশিত: ৯:৩১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৯, ২০২১

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ(২৫নভেম্বর হতে ১০ডিসেম্বর-২০২১) ও বেগম রোকেয়া আলোচনা সভা ও জয়িতা সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।এ উপলক্ষে প্রতিপাদ্যের বিষয় ছিল,”শেখ হাসিনার বারতা,নারী-পুরুষ সমতা”থাকলে কন্যা সুরক্ষিত,দেশ হবে আলোকিত”।

বৃহস্পতিবার(৯ডিসেম্বর) সকালে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।এসময় বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফল নারী হিসেবে নির্বাচিত ৫জন নারীকে জয়িতা পুরস্কার প্রধান করা হয়।তারা হলেন অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী নারী নিপু ত্রিপুরা,শিক্ষা ও চাকরীর ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী নারী মাচিচিং মারমা,সফল জননী নারী ইন্দিরা দেবী চাকমা,নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করেছে যে নারী, তিনি হলেন আমেনা আক্তার,সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখেছেন, তিনি হলেন নমিতা চাকমা।এতে জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি।

আলোচনা সভায় প্রতিভা ত্রিপুরা’র সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের ডি.ডি. মো:মহিউদ্দিন আহমদ প্রমুখ।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন,কোন পরিবার অথবা রাষ্ট্র কিংবা ব্যক্তিরা কোন সমাজ, যদি মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে মহৎ চিন্তা নিয়ে যেকোন কাজ সম্পাদন করে থাকে।নিশ্চয় হাজার পরেও সমাজের কাছে পুনর্বার জাগ্রত হয়ে থাকে।
তিনি আরো বলেন, নারীদের শিক্ষার প্রসার ছাড়া সমাজের মুক্তি নেই এবং সমাজের কোনো আশা নাই’ এই মূলমন্ত্রে বিশ্বাসী বেগম রোকেয়া সমাজের প্রবল প্রতাপের বাধা থেকে বেড়িয়ে এসে নারী শিক্ষার জাগরণে কাজ করে যান। সেই সঙ্গে তার আন্দোলনে যোগ হয় নারী সমাজের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পি.বি.এম সেবা) মো: মনিরুজ্জামান, জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থা’র চেয়ারম্যান ক্রইসাঞো চৌধুরী প্রমুখ।এছাড়াও জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের সহকারী-পরিচালক মো: জসীম উদ্দীন,নারী উদ্যোক্তা ও সমাজকর্মী শাপলা দেবী ত্রিপুরাসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।