ঢাকা, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৬ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

বেনাপোলের বালুন্ড গ্রামে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে অমানবিক নির্যাতন..


প্রকাশিত: ৭:০৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ৪, ২০২১

জাহিদ হাসান:

বেনাপোলের বালুন্ড গ্রামে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে অমানবিক নির্যাতন করে সারা শরীর জখম করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে মোঃ গোলাম রসুল (৩২) নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

রবিবার (৪ জুলাই) অভিযোগের ভিত্তিতে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ তাকে আটক করে। আটককৃত গোলাম রসুল বালুন্ডা গ্রামের আব্দুল সাত্তারের একমাত্র পুত্র। বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ২ জুলাই শুক্রবার রাতে যৌতুকের টাকা না পেয়ে রেগে গিয়ে গোলাম রসুল তার স্ত্রী বেবি বেগমকে বাশের চটা দিয়ে তার সারা শরীরে বেধরক পেটায়। চটার আঘাতে বেবির সারা শরীরে জখম সহ দুই হাতের কবজি থেকে আঙ্গুল পর্যন্ত কেটে চৌচির হয়ে গেছে। এই অমানবিক নির্যাতনের সময় মেয়েটির চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় গ্রাম্য ডাক্তারখানায় নিয়ে গিয়ে তার পিতাকে খবর দিলে, তারা তাকে নিয়ে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা দেয়।

এবিষয়ে ভুক্তভোগী বেবি বেগম বলেন, আমার স্বামী আমাকে প্রায়ই টাকার দাবীতে নির্যাতন করে। আমি কয়েকবার আমার বাবার কাছ থেকে তাকে টাকা এনে দেয়। এর আগে আমি একবার নির্যাতনের কারণে চলে আসি পরে গ্রাম্য শালিস মাধ্যমে আমাকে নিয়ে যায়। আামাদের ৮ বছরের সংসার জীবনে একটা ৭ বছরের মেয়ে সন্তান আছে। কিন্তু তার সংসারে কোন মন নেই, সে মোবাইলে বিভিন্ন মেয়েদের সাথে কথা বলে এবং নানাভাবে সংসারে অশান্তি বাধিয়ে আমাকে নির্যাতন করে। আমার জীবনটা সে ধ্বংস করে দিয়েছে আমি এর বিচার চাই। আমি এই পশুর সংসার আর করতে চাই না।