বেনাপোল ইউনিয়ানে ৫৫০ জনকে গণটিকার ২য় ডোজ দেওয়া হয়

Jahid Jahid

Hasan

প্রকাশিত: ১:২৮ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২১

মুরাদ হোসেনঃ

 সারাদেশের ন্যায় কোভিড ১৯ এর গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার অংশ হিসাবে আজ যশোর জেলার শার্শা উপজেলার বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের, বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৫৫০ জনকে দেওয়া হয় গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ।

মঙ্গলবার (৭ই সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টায় বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, টিকা নিতে আসা নারী-পুরুষের দীর্ঘ লাইন। টিকা নেওয়ার জন্য তারা মধ্যে আনন্দের অধীর আগ্রহ লক্ষ করা যায়।

টিকার প্রথম ডোজ নেওয়া রাবেয়া বেগম বলেন, আমার দ্বিতীয় ডোজ টিকার তারিখ ছিল আজ ৭ সেপ্টেম্বর। সেহেতু আজ টিকা দিয়েছে। টিকা কার্ড নিয়ে টিকাকেন্দ্রে এসে সহজেই টিকা নিতে পেরেছি। কোনো ঝামেলা হয়নি। প্রথম দিনের তুলনায় আজ খুব দ্রুত টিকা দিচ্ছে এবং ঝামেলা নেয়।

তবে দীর্ঘ লাইন থাকায় কিছু সময় অপক্ষো করতে হচ্ছে টিকা নিতে আসা মানুষের। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে আসা সুজন মিয়া বলেন, টিকার প্রথম ডোজ নিতে সে দিন পুরুষের লাইনে দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছিল আর আজ এই লাইনটি অনেক দীর্ঘ তারপরও খুবই দ্রূত টিকা কার্যকর্ম সম্পন্ন হচ্ছে। তবে আজ প্রথম দিনের মতো কোন ঝামেলায় হয়নি।

চঞ্চল হোসেন নামে আরেকজন বলেন, মাঠে কিছু কাজ ছিল, সেগুলো শেষ করে এসেছি। এখানে এসে কোন প্রকার লাইনে দাঁডাতে হয়নি। আগের দিন টিকা দিতে এসে অনেক দেড়ি হয়েছিলো, আর আজ ১১ টার মধ্যে সবার টিকা দেওয়া প্রায় শেষ।

টিকা কার্যক্রম চলাকালীন সময়ে সর্বক্ষণিক উপস্থিত ছিলেন ৪নং বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বজলুর রহমান। তিনি বলেন, ১ম দিন ছোটখাটো কিছু ভূল আজ আমরা শুধরিয়ে নিয়েছি যার ফলে খুব দ্রূতই টিকা কার্যকর্ম সম্পন্ন হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, জনসাধারণকে অবগত করার লক্ষ্যে গতকাল ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে মাইকিং এর মাধ্যমে গণটিকার বিষয়টি জানানো হয়েছে যাতে কেউ বাদ না পরে।

উল্লেখ্য যে, ৭ই আগষ্ট প্রথম ডোজের টিকাগ্রহীতাদের মধ্যে যাদের দ্বিতীয় ডোজের জন্য ৭ই সেপ্টেম্বর সময় দেওয়া হয়েছিল শুধুমাত্র তাদেরকে আজ টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে।