ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত সদস্যের পাশে বাপা

প্রকাশিত: 9:06 PM, May 25, 2020

ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের (এনওয়াইপিডি) ট্রাফিক এনফোর্সমেন্ট এজেন্ট তানিন হানিফের পাশে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশি আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশন (বাপা)। সংগঠনটি এককালীন অনুদান হিসেবে প্রায় ২২ হাজার ডলার প্রদান করেছে তাকে।

স্থানীয় সময় শনিবার বিকালে নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় অনাড়ম্বর এক অনুষ্ঠানে তানিন হানিফের কাছে চেক হস্তান্তর করেন বাপার প্রেসিডেন্ট কারাম চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক প্রিন্স আলম। এসময় সেখানে আরও ছিলেন বাপার সিনিয়র সহ-সভাপতি এরশাদ সিদ্দিকী, সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ রাসেক মালিক, ইভেন্ট কো-অডিনেটর সর্দার আল মামুন, কো-ট্রেজারার মেহদী মামুন, কনসালটিং সেক্রেটারি সৈয়দ এনায়েত আলী, অসুস্থ তানিন হানিফের স্ত্রী ইশরাক জাহান পলি প্রমুখ।

করোনা মহামারীর কিছুদিন আগে তানিন হানিফ (৩৩) ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হলে তাকে লং আইল্যান্ড জুইশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে টিউমার অপসারণ করা হলেও মাসখানেক পর সংশ্লিষ্ট হাসপাতালে ফলোআপের জন্যে গেলে দেখা যায় যে, ঠিকমত অপসারণ না হওয়ায় পুনরায় তা আরও বড় আকার ধারণ করেছে। এ অবস্থায় চিকিৎসকেরা খুব দ্রুত অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দেন। দীর্ঘ ১২ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে টিউমারটি পুরোপুরি অপসারণ করা সম্ভব হয়েছে।

বাপার কর্মকর্তারা বলেন, বিপদের সময় আমরা একজন সদস্যের পাশে দাঁড়াতে পেরে খুবই আনন্দিত। আমরা ঈদের আগের দিন অন্তত একটি পরিবারের মুখে হাসি ফোটাতে পেরেছি। বিপদে পাশে দাঁড়ানোই বাপার অন্যতম উদ্দেশ্য। বাপা বাংলাদেশি কমিউনিটির জন্য কাজ করছে। সবসময় এভাবেই কাজ করে যাবে সংগঠনটি।

নিউইয়র্ক পুলিশের অফিসার ও বাপার ইভেন্ট কোঅর্ডিনেটর সর্দার মামুন জানান, তানিন হানিফের চাকরি নতুন হওয়ায় চিকিৎসার জন্যে ছুটিতে থাকাকালীন কোনো বেতন পাচ্ছিলেন না। তাই বাপার নেতৃবৃন্দ পুলিশ কমিশনার ডারমট শিয়ার সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে চিকিৎসার সময়ে পূর্ণ বেতন পাবার পথ সুগম করেন। এজন্য তানিম হানিফ বাপার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।