ঢাকা, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

বড়াইগ্রামে বাল্যবিয়েকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীকে কুপিয়ে জখম।


প্রকাশিত: ১২:৫৮ অপরাহ্ণ, জুন ৩, ২০২০
মোঃ সুরুজ আলী,বড়াইগ্রাম(নাটোর)প্রতিননিধি:নাটোরের বড়াইগ্রামে বাল্যবিয়েকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী মিলনকে (২০) কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে মেয়ের বাবা রফিক উদ্দিন (৪০)।
রবিবার সকাল ১০ ঘটিকায় গোপালপুর ইউনিয়নের গড়মাটি এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটেছে।
জানা যায়, করোনা মহামারী পরিস্থিতির মধ্যেও গতকাল বিকেলে লালপুর উপজেলার কদমচিলান ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের নাহারুল ইসলামের ছেলে রুহুল আমিনের সাথে গড়ামাটি পশ্চিমপাড়া রফিক উদ্দিনের ১৫ বছর বয়সের  স্কুল ছাত্রী রচনা কে গোপনে বিয়ে দেওয়া হয়।
রচনা গড়মাটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনির ছাত্রী।
রফিক উদ্দিনের ১৫ বছর বয়সের মেয়েকে গোপনে বিয়ে দেওয়ার বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য মেয়ের বাবা দিগ্বিদিক হয়ে পড়েন।
আইয়ুব আলী সরকারের ছেলে মিলন বাল্য বিয়ের ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়েছে সন্দেহে এক পর্যায়ে মেয়ের বাবা রাগান্বিত হয়ে আজ সকালে তার ভাই নজরুল এবং মৃত তকুর মোল্লার ছেলে নূর মোহাম্মদ মিলে তাকে, তার স্ত্রী এবং মাকে বেধড়ক মারপিট শুরু করে।
মিলকে হত্যার উদ্দেশ্যে হাসুয়া দিয়ে আঘাত করলে তার বাম হাত কেটে যায়।
মিলনের চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে ফেলে ঘাতকরা পালিয়ে যায় পরে এলাকাবাসী উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করেন।
এই ঘটনার প্রেক্ষিতে মিলন বাদী হয়ে বড়াইগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলীপ কুমার দাস জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।