ঢাকা, ২৯শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ৭ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

মহালছড়ি উপজেলায় “স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম”র কমিটি গঠন


প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০২১

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়িতে বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ (Bangladesh Health Watch)’র মহালছড়ি উপজেলা কমিটি গঠন করা হয়েছে।রবিবার(১৪নভেম্বর)সকালে মহালছড়ির ২৪মাইল এলাকায় চৌধুরী ব্যাম্বু রেস্টুরেন্টে আলোচনা সভা আয়োজনের মধ্যদিয়ে এ কমিটি গঠন করা হয়।

সভায় খাগড়াছড়ি ডিএইচআরএফ’র সভাপতি সাধন কুমার চাকমার সভাপতিত্বে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ও অবহিত করন করা হয় এবং ইউনিয়ন সিলেক্টশন করা হয়।এতে মোঃ শাহজাহান পাটোয়ারীকে সভাপতি, সুইনুপ্রু চৌধুরীকে সহ-সভাপতি, ভৌমিকা ত্রিপুরা(নারী) সহ-সভাপতি করে এবং মিল্টন চাকমাকে সদস্য সচিব করে ১৫সদস্য বিশিষ্ট কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়।

এসময় ধনেশ্বর ত্রিপুরার সঞ্চালনায় সভাপতির বক্তব্যে সাধন কুমার চাকমা বলেন,খাগড়াছড়ি জেলার পিছিয়ে পড়া প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে স্বাস্থ্য অধিকার সম্পর্কে জেলার সকল উপজেলায় স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম কাজ করবে।স্বাস্থ্য খাতে আমাদের বাংলাদেশে অনেক আইন রয়েছে।তথাপি আমাদেরকে এ অর্জন নিয়ে সন্তুষ্ট হয়ে বসে থাকলে চলবেনা,বসে থাকার কোন সুযোগ নেই।আমরা রাতারাতি স্বাস্থ্য খাতে বিপ্লব ঘটাতে পারবো না।পারবোনা বলে হাত গুটিয়ে বসে থাকলেও আমাদের চলবেনা।স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম স্বাস্থ্য সেবা গ্রহীতা ও সেবা দাতা উভয়ের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন তৈরী করে, এ জেলার স্বাস্থ্য সেবাকে আরও অধিকতর উন্নত পর্যায়ে নিয়ে যেতে আগ্রহী।এক্ষেত্রে যুব ফোরামকে আন্তরিকতার সাথে কাজ যাওয়ার আহ্বান জানান এবং সেবামূলক কাজের গতিকে এগিয়ে নিয়ে আসার আহ্বান জানান।পরে তিনি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং উপজেলায় স্বাস্থ্য অধিকার ফোরামে তার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।
পরিশেষে তিনি একটি কবিতার চরণ উল্লেখ করে বলেন,ছোট ছোট(ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র) বালু কণা বিন্দু বিন্দু জল,গড়ে তোলে মহাদেশ সাগর অতল।মুহূর্তে নিমেষ কাল, তুচ্ছ পরিমা,ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বালু কণা নিয়ে গড়ে ওঠে মহাদেশ, বিন্দু বিন্দু জল নিয়ে মহাসাগর,তুচ্ছ মুহূর্ত নিয়ে যুগ যুগান্তর।তাই এখানে আমাদেরকে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র প্রচেষ্টার মাধ্যমে স্বাস্থ্য খাতকে নিয়ে কাজ করে যেতে হবে।ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র প্রচেষ্টার মাধ্যমে স্বাস্থ্য অধিকার ফোরামের কাজের গতি বৃহত্তর পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারব।পরে কমিটি গঠন ও অবহিতকরণ সভায় উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

কমিটি গঠন ও অবহিতকরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,জাবারাং কল্যাণ সমিতির নির্বাহী পরিচালক মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা,পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক শাহজাহান পাটোয়ারী, ২২৬নং সিন্দুকছড়ির হেডম্যান সুইনুপ্রু চৌধুরী,মহালছড়ি উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান জসীম উদ্দিন,বিএইচএন রাজেশ অধিকারী,মহিলা কার্বারী উম্রাসং মারমা,কার্বারী বিমল কান্তি চাকমা,কার্বারী কর্মচান ত্রিপুরা,যৌথখামারের মহিলা কার্বারী ও সমাজকর্মী ভৌমিকা ত্রিপুরা,জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরামের সহ-সভাপতি মিনুচিং মারমা,প্রধান শিক্ষক মংসুইনু মারমা,জলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরামের যুব বিষয়ক সম্পাদক মোঃ শাহাদাৎ হোসেন কায়েশ,KHDC ভলান্টিয়ার ম্রাসাইন্দা মারমা প্রমুখ।

প্রসঙ্গত;বাংলাদেশের নাগরিক সমাজের একটি বহুপাক্ষিক সংগঠন হিসেবে গঠিত হয় বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ(বিএইচডব্লিউ);যার লক্ষ্য বিদ্যমান ছিল নীতি ও কর্মসূচির অনুপুঙ্খ পর্যালোচনা ও যথাযথ সুপারিশ প্রদানের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতে মানুষের অংশগ্রহণ।সারা বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতে মানুষের অংশগ্রহণ ও অধিকার নিশ্চিত করার জন্য শুধুমাত্র জাতীয় পর্যায়ে কাজ করাটাই যথেষ্ট নয়।এজন্য বিভাগের ৮জেলায় রিজিওনাল চ্যাপ্টার প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয়া হয়।যাতে স্থানীয় পর্যায়ে স্বাস্থ্য অধিকার,স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে সচেতনতা,স্বচ্ছতা,জবাবদিহিতা বৃদ্ধি এবং সকল পর্যায়ে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে স্বাস্থ্যসেবার টেকসই উন্নয়নে সহায়ক হিসেবে কাজ করা।