মাদক ব্যবসায়ী কর্তৃক সাংবাদিককে হুমকি: অতপর মিথ্যা সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ৯:১০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২২

 

কলারোয়া প্রতিনিধিঃ

কলারোয়া উপজেলার গয়ড়া গ্রামের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী তবিবর রহমানের বিরুদ্ধে নিউজ করায় সাংবাদিক আব্দুল্লাহকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি সহ প্রাণনাশের হুমকি দেয় তবি। এরপর তার কাছে পাওনা টাকা চাইলে ঐ টাকা মাদক মাদক বিক্রয়ের টাকা হিসাবে সে পায় বলে কলারোয়া পৌর প্রেসক্লাবে অর্থের জোড়ে মিথ্যা সংবাদ সম্মেলন করে।

এর আগে গণি মিষ্টান্ন ভান্ডারের সত্ত্বাধিকারী মিজানুর রহমান তার পাওনা টাকা চাইলে গোপনে তার দোকানে ৪০ পিস ইয়াবা রেখে পুলিশকে খবর দিয়ে ধরিয়ে দেয়। পরে ঘটনার সত্যতা প্রকাশ পেলে পুলিশ তার বাড়ি থেকে ১২ পিস ফেন্সিডিল সহ তবিকে গ্রেফতার করে এবং জনসম্মুখে তবি তার দোষ স্বীকার করে।

সেই তবি জেল থেকে বের হয়ে এসেই সাংবাদিক আব্দুল্লাহকে ফোনে হুমকি সহ গালিগালাজ করে, যেটা ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

এবিষয়ে সাংবাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, তবিবর রহমান তবি যে একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সেটা এলাকার সকলে জানে এবং তার নামে থানায় একাধিক মামলাও আছে। তবি আর আমি একই এলাকার হওয়ায় সে গরু বিক্রয় করবে বলে আমার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নেয়। পরে জানতে পারি এক গরু দেখিয়ে সে আরো ২ জনের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে, এর মধ্য একজন তার বাসা থেকে গরু নিয়ে চলে গেছে। পরে আমি আমার টাকা ফেরত চাইলে সে আমাকে মাদক দিয়ে ধরিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এমতাবস্থায় আমি নিজের জীবন ও পরিবার নিয়ে ভয়ে জীবনযাপন করছি। বিষয়টি আমার সহকর্মী সাংবাদিকদের সাথে আলোচনা করে তাদের সাথে নিয়ে কলারোয়া থানায় হাজির হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।

এবিষয়ে এলাকার একাধিক ব্যাক্তি বলেন, তবি একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। সে ২ দিন আগে জেল থেকে জামিনে বের হয়েই কিভাবে হাজী সাহেব বনে গেলো এবং মাদকের টাকা ফেরত চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করলো সেটায় বুঝলাম না।

এবিষয়ে কলারোয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক কবির হুসাইন বলেন, আমি এই মামলাটার তদন্ত করছি, ওসি স্যারের পরামর্শ নিয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।