মানিকছড়িতে মাদ্রাসায় পড়ুয়া ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে ইমাম গ্রেপ্তার

Jahid Jahid

Hasan

প্রকাশিত: ১১:২৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক,খাগড়াছড়ি:

মানিকছড়ি উপজেলার গাড়ীটানাস্থ গরমছড়ি জামে মসজিদের ইমান কর্তৃক মক্তবের ছাত্রী(১৪) কে শ্লীলতাহানির অভিযোগে নারী ও শিশু আইনে মামলায় ইমাম আটক।
উপজেলার ৩ নং যোগ্যাছোলা ইউপির গাড়ীটানাস্থ গরমছড়ি জামে মসজিদের ইমান মোঃ ওয়াছি উদ্দীন(২৬), পিতা- মো. আলী হোসেন, সাং -চানপুর, থানা- ভুজপুর,উপজেলা- ফটিকছড়ি গত ২৭ জুলাই মসজিদের পাশে বাগানে মক্তব ছাত্রীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় কয়েকজন ব্যক্তি তাদের আটক করে ইমামকে মারধর করেন।
খবর পেয়ে ইউপি সদস্য মোঃ আবদুল মতিন ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ জয়নাল আবেদীন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে ওই শিশু শিক্ষার্থীকে (মক্তব ছাত্রী) জিজ্ঞাসাবাদ করলে ছাত্রী অপকটে তাদের মধ্যে অনৈতিক কর্মকান্ডের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, হুজুর অনেক আগ থেকে আমাকে মোবাইল ম্যাসেজে প্রেমের প্রস্তাব দেয় এবং একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে।
তবে ইমাম মোঃ ওয়াছি উদ্দীন ম্যাসেজের বিষয়ে স্বীকার করলেও শ্লীলতাহানির অভিযোগ অস্বীকার করেন।
পরে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টায় পুলিশ মক্তব ছাত্রী, তার অভিভাবক ও ইমামকে থানায় নিয়ে আসেন। পরে ২৮ জুলাই ওই ছাত্রীর পিতা- মোঃ আবদুল আহাদ বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৪, তারিখ- ২৮.৭.২০২১খ্রি. । তবে অভিযুক্ত ইমাম মাওঃ ওয়াছি উদ্দীন শ্লীলতাহানি অভিযোগ বারবার অস্বীকার করে বলেন, ছাত্রীকে ম্যাসেজে প্রেমের প্রস্তাব ব্যতিত সব অভিযোগ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রের অংশ।
থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহনূর আলম মক্তব পড়ুয়া ছাত্রী( শিশু শিক্ষার্থী) শ্লীলতাহানির ঘটনায় মামলা রুজু ও অভিযুক্ত ইমাম মাও. মোঃ ওয়াছ উদ্দীন আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।