মুজিব শতবর্ষ ও সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে পটিয়া জেলায় তিন দিনের বর্ণাট্য আয়োজন

প্রকাশিত: ১০:৫০ অপরাহ্ণ, মার্চ ২০, ২০২২

মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলায় তিন দিনের বর্ণাঢ্য আয়োজন মঙ্গলবার (২২ মার্চ) থেকে শুরু হচ্ছে। পটিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এদিন সকালে উৎসবের উদ্বোধন করবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
রোববার (২০ মার্চ) নগরীর একটি রেস্তোঁরায় এক সংবাদ সম্মেলনে আয়োজনের বিস্তারিত তুলে ধরেন উৎসব কমিটির চেয়ারম্যান ও পটিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাহারুল ইসলাম চৌধুরী।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, তিনদিনের আয়োজনে পটিয়ার ৭৮ কৃতী সন্তানকে সম্মাননা দেওয়া হবে। এদের মধ্যে ৩২ জনকে মরণোত্তর স্বর্ণস্মারক দেওয়া হবে এবং ৫০ বেকার যুবকের জন্য কর্মসংস্থানের আয়োজন করা হয়েছে। উৎসব মঞ্চে প্রতিদিন আলোচনা সভার পাশাপাশি আবৃত্তি, নৃত্য ও সঙ্গীত পরিবেশন করা হবে।

উদ্বোধনী দিনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধান অতিথি থাকবেন এবং জাতীয় সংসদের হুইপ ও পটিয়ার সাংসদ সামশুল হক চৌধুরী বিশেষ অতিথি থাকবেন। দ্বিতীয় দিন প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বৃহস্পতিবার শেষ দিনে হুইপ সামশুল হক চৌধুরী উৎসবের সমাপ্তি ঘোষণা করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন উৎসবের উদ্যোক্তা পটিয়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান নাজমুল করিম চৌধুরী শারুন, উৎসব কমিটির সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম শামসুজ্জামান, সমন্বয়কারী শহীদ উল আলম, মিডিয়া কমিটির আহবায়ক মহসিন চৌধুরী। এছাড়া উৎসব কমিটির কো-চেয়ারম্যান আসিফ সিরাজ, অনিন্দ্য টিটু, প্রণব বড়ুয়া অর্ণব, মিয়া মোহাম্মদ আরিফও ছিলেন।

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কলিম সরোয়ার, প্রথম আলোর বার্তা সম্পাদক কবি ওমর কায়সার, সাংবাদিক শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার, মাইনুদ্দিন দুলাল, আব্দুস সবুর শুভ, আলমগীর সবুজ, লোকমান চৌধুরী, নুরুল ইসলাম, আবদুল হাকিম রানা, উৎসব কমিটির কো-চেয়ারম্যান দেবব্রত দাশ, তিমির বরণ চৌধুরী, বিজন চক্রবর্তী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।