শহিদ মিনারে জুতা পায়ে আদমদীঘি’র এসিল্যান্ড

প্রকাশিত: ৪:০৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৮, ২০২১

আহসান হাবিব শিমুল(আদমদীঘি প্রতিনিধি)

বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উৎযাপন অনুষ্ঠান স্থল শহিদ মিনার বেদী মঞ্চে জুতা পায়ে উঠে অবস্থান করার ধৃষ্ঠতা দেখালেন বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা সহকারি কমিশনার(ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবা হক। লজ্জাজনক এই ঘটনাটি আদমদীঘি’র সচেতন মহলে টক অব দ্যা আদমদীঘিতে পরিনত হয়েছে। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে গেছে।

জানা গেছে, আদমদীঘিতে জাতীয় অনুষ্ঠান গুলো উপজেলা ক্যাম্পাসে অবস্থিত শহিদ মিনারে পালন বা উৎযাপন করা হয়ে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার বঙ্গবন্ধু’র জন্ম শতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসের অনুষ্ঠান শহিদ মিনারে করা হয়। শহিদ বেদী মঞ্চে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সীমা শারমিন, প্রধান ও বিশেষ অতিথি আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ এবং সরকারি অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তাগণ খালি পায়ে অথবা মোজা পড়ে থাকলেও শুধু মাত্র ওই কর্মকর্তাকে জুতা পায়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হকের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি তাঁর প্রেগনেন্সি (সাত মাস) নিয়ে কখনো আবেগী, কখনো কঠোরতা এবং আপনারা সাংবাদিকরা আমাকে আইটেম বানিয়ে নিউজ করে কি করতে পারেন দেখি বলে দাম্ভিকতা প্রকাশ করেন। কিন্তু অসাবধনতাবশত কিম্বা ভুলে জুতা পায়ে উঠেছেন বলে দুঃখ প্রকাশ করেননি। বরং কোন এক সাংবাদিকের কন্ঠে আদমদীঘি’র “সব সাংবাদিক” ঘুষ নিয়ে চলেন এমন অডিও রেকর্ড তাঁর কাছে রয়েছে বলে কঠোরতার সাথে দাবী করেন।