সবচেয়ে কঠিন বিষয়ের বইটা আজ সরস্বতীর পায়ের কাছে রাখার তাড়া;খাপাজেপ সদস্য খোকনেশ্বর ত্রিপুরা

প্রকাশিত: ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২২


খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

সারাদেশের ন্যায় খাগড়াছড়িতেও নানান আয়োজনের মধ্যদিয়ে সার্বজনীন বাণী অর্চনা(স্বরস্বতী)পূজা উদযাপন করা হয়েছে।সরস্বতী পূজা মূলত বিদ্যা ও সঙ্গীতের দেবী সরস্বতীর আরাধনাকে কেন্দ্র করে অনুষ্ঠেয় একটি অন্যতম প্রধান হিন্দু ধর্মীয় উৎসব। শাস্ত্রীয় বিধান অনুসারে মাঘমাসের শুক্লা পঞ্চমী তিথিতে সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার(৫ফেব্রুয়ারি)দিনব্যাপী এই পূজার উপলক্ষে নানান কার্যত্রম হাতে নেয় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা।সন্ধ্যার দিকে মহালছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়র মাঠে আয়োজিত সার্বজনীন পূজা অনুষ্ঠানে নবলেশ্বর ত্রিপুরা লায়ন’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের অন্যতম সদস্য খোকনেশ্বর ত্রিপুরা।

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদের খোকনেশ্বর ত্রিপুরা বলেন,ধর্মপ্রাণ সনাতন পরিবারে এই দিন শিশুদের হাতেখড়ি, ব্রাহ্মণভোজন ও পিতৃতর্পণের প্রথাও প্রচলিত। পূজার দিন সন্ধ্যায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সর্বজনীন পূজামণ্ডপগুলিতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও আয়োজিত হয়। পূজার পরের দিনটি শীতলষষ্ঠী নামে পরিচিত।মাঘের শীতের পরোয়া না করে সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠেই স্নান করে বাসন্তী শাড়ি পরার দিন আজ। সকাল ঘনিয়ে দুপুর, দুপুর ঘনিয়ে এখন সন্ধ্যা।সরস্বতীপুজো এসেছে শীতের শহরে,এই শীতের গ্রামে আর গঞ্জে।সবচেয়ে কঠিন বিষয়ের বইটা সরস্বতীর পায়ের কাছে রাখার তাড়া।

অন্যান্য বক্তারা বলেন,বসন্তের রঙ লাগবে সারা দেশ জুড়েই। কিন্তু বাংলাদেশের মতো বৈচিত্র্যময় দেশে বসন্তও আসে ভিন্ন ভিন্ন রঙে। সাংস্কৃতিক বৈচিত্রের এই দেশে আজ একই সঙ্গে কোথাও সরস্বতীকে আরাধনার দিন তো কোথাও ঘুড়ি ওড়ানোর পালা। বসন্ত পঞ্চমীকে কেন্দ্রে রয়েছেন দেবী সরস্বতী। বীণা আর পুস্তক হাতে যিনি আমাদের সকলের বিদ্যে বুদ্ধির দায়িত্ব সামলাচ্ছেন সেই কোন কাল থেকে। বলা হয়, হলুদ দেবী সরস্বতীর প্রিয় রঙ। শীতের কামড়ের পরে বসন্তের নরম উষ্ণতাকে যেন হলুদ রঙ দিয়েই চিহ্নিত করার দিন।আজ বই খাতাদের ছুটির দিন।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা আওয়ামী-লীগের দপ্তর সম্পাদক চন্দন কুমার দে,গোলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জ্ঞান রঞ্জন ত্রিপুরা,ভাইবোনছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পরিমল ত্রিপুরা,বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদের সাধারণ সম্পাদক অনন্ত কুমার ত্রিপুরা,পৌর আওয়ামী লীগে সহ-সভাপতি শিশির চাকমা,গোলাবাড়ি ইউনিয়নের সদস্য কুবলেশ্বর ত্রিপুরা,প্রণব ত্রিপুরাসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।