সবুজ রুপে সেজেছে খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ

প্রকাশিত: ৯:৫০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০২১

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ সংস্কার ও সবুজায়ন’র উদ্বোধন করেছেন জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।বুধবার(০১ডিসেম্বর)বিকাল সাড়ে ৩টায় খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী (৫০ বছর) পূর্তি ও বিজয়ের মাসে এ সবুজায়ন মাঠি উদ্বোধন করা হয়েছে।আজ থেকে এখানে সবধরণের খেলাধুলা চলবে।এদিন সবুজায়ন মাঠ উদ্বোধন উপলক্ষে এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সবুজায়ন মাঠের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন,আজ এই ঐতিহাসিক দিনে হাই স্কুলের সবুজায়ন মাঠ উদ্বোধন করতে পেরে আমি অত্যন্ত গর্ববোধ করছি।আসলে এই মাঠের নতুন রুপে সাজানোর পুরো ক্রেডিট সবুজ চাকমা,সাজেদ মাহমুদ তার সহকর্মীদের।তারা আমাদের সবার চোখে আঙ্গুল দেখিয়ে দিল,চাইলেই কতকিছু করতে পারি।দেশের সকল ভালো কাজের জন্য সবসময় সরকারি উদ্যোগের প্রয়োজন হয় না।যেখানে সরকারি উদ্যোগে ব্যর্থ, সেখানেই ব্যক্তিগত উদ্যোগে এই কাজগুলো করা যায়।যেমন র বাস্তব উদাহরণ
আজকে যারা মাঠের রুপ পাল্টিয়ে দিয়েছে তারাই।এই মাঠের সংস্কারের জন্য ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হিসেবে আমারই দায়িত্ব ছিল,কিন্তু আমি সেটা পারিনি।কিন্তু নিজ উদ্যোগে আজ সবুজ চাকমা,সাজেদ মাহমুদ যে কাজটি করে দেখিয়ে দিল,তাই অত্যন্ত প্রশংসাযোগ্য।স্কুলের পক্ষ থেকে,খাগড়াছড়ির পক্ষ থেকে এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।


এসময় সবুজ চাকমা বলেন,আমরা দেখেছি যে,বর্তমান প্রজন্মরা স্মার্টফোন, মোবাইলের গেইম ইত্যাদিতে আসক্ত। তারা মাঠে আসেনা।আমরা চিন্তা করেছি যে,আমরা যদি সুন্দর একটা পরিবেশ দিতে পারি।আমার বন্ধু যদি মাঠে যায়,তখন আমি আমার বন্ধুর সাথেই যাবো।ছোটবেলায় আমরা এইভাবে যেতাম এবং মাঠ আমাদেরকে টানতো।স্কুল ছুটি হওয়ার সাথে সাথে আমরা মাঠে দৌঁড় দিতাম।প্রায় সময় স্কুল থেকে বাসায় গিয়ে ভাত অল্প খেয়ে দৌঁড় দিতাম মাঠে।মাঠ সবসময় তরুণদের টানে,ছাত্রদেরকে টানে।কাজেই নতুন প্রজন্মকে মোবাইল ফোন থেকে দূরে সরানোর জন্য এবং তাদের জন্য সুন্দর পরিবেশ তৈরি করা আমাদের সকল নাগরিকের দায়িত্ব।শুধু সরকার আমাদেরকে অনেক কিছু দিবে বলে বসে থাকলে চলবেনা। নাগরিক হিসেবে আমাদের দেশের জন্য,সমাজের জন্য এবং জাতির জন্য অনেক দায়িত্ব রয়েছে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মোঃ শানে আলম,খাগড়াছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ত্রিনা চাকমা,সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাসুদেব কুমার মালো,জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম দিদার,উপজাতীয় টাস্কফোর্সের নির্বাহী কর্মকর্তা এম.রাশেদুল হক,সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রদীপ চৌধুরী প্রমুখ।